• বুধবার   ৩০ নভেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ক্ষমতায়ন ছাড়া সমাজে নারীর অবস্থান উন্নত হবে না: প্রধানমন্ত্রী অপপ্রচারকারীদের কনস্যুলার সেবা দেবে না কানাডার বাংলাদেশ মিশন ‘দেশের ফুটবল দলকে বিশ্বকাপের উপযোগী করতে কাজ চলছে’ ট্রেনের ধাক্কায় ইউএনও অফিসের নৈশপ্রহরীর মৃত্যু ‘পলিথিন প্রস্তুতকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে’

নীলফামারীতে কুখ্যাত তিন গরু চোর গ্রেপ্তার

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৭ নভেম্বর ২০২২  

নীলফামারী জেলা পুলিশের অভিযানে কুখ্যাত তিনজন গরু চোর গ্রেপ্তার হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- সদর উপজেলার উত্তরাশী গ্রামের মৃত লেকচার আলী ছেলে মতিয়ার রহমান (৫৫) ও একই এলাকার মোঃ দুলালের ছেলে মোঃ রুবেল মিয়া (৩৫)।

সোমবার (৭ নভেম্বর) জেলা পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে তাদের সদর উপজেলার চড়াইখোলা ও পঞ্চপুকুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে সদর থানা পুলিশ।

তথ্য নিশ্চিত করে সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ মুক্তারুল আলম জানান, তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে কুখ্যাত দুই গরু চোরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

উল্লেখ্য, আসামি মোঃ মতিয়ার রহমানের বিরুদ্ধে (1) GR-201/5, (2) GR-151/6, (3)GR-312/17, (4) FIR-22, তাং-২৪/০৯/১৭,  (5)FIR-17, তাং-১৩/১০/২০, (6) GR-312/19, (7) GR-244/19, (8) GR- 110/18, (9) GR-173/21 এবং আসামি মোঃ রুবেল মিয়ার বিরুদ্ধে (1)GR- 317/17, (2) GR-244/19,(3) GR-372/20,(4) FIR-17, তাং২৬/০১/১৮,(5) GR-110/18, (6)GR-244/19, (7) GR-173/21, (8) GR-372/21, (9) GR-244/19,(10)GR-175/19, (11) GR-32/19, (12)GR-317/17, (13) GR-132/17, (14) FIR-22, তাং- ২৮/০১/১৫ বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

অপরদিকে ০৭/১১/২০২২ এসআই সুভাষ, এসআই আরমান, এসআই রাজু, এসআই সুবোধ,  এএসআই মোত্তালেব,  এএসআই তপন ও ফোর্স সহ তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করিয়া  কুখ্যাত গরু চোর মৃত কলিম উদ্দিনের ছেলে মোঃ আনোয়ার হোসেন (৪৪)কে দারোয়ানি টেক্সটাইল এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আসামি মোঃ আনোয়ার হোসেনের বিরুদ্ধে (1) GR-48/19, (2) GR-189/22 (3)GR-317/17,  (4)FIR-4, তাং-০২/০৪/১৭,(5) GR-197/21, (6) GR-386/17, (7) 132/17, (8)FIR-07, তাং- ১৪/০৩/১৬, (9)  FIR-17, তাং- ২৬/০১/১৮ (10) GR-102/5, (11) FIR-16, তাং- ১১/০৫/১৭, (12) GR-312/17, (13) GR-391/20, (14) GR-325/21 বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।