• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

চামড়া, বস্ত্র ও ওষুধ খাতে বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহী ইরাক

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২৩  

 
চামড়া, বস্ত্র ও ওষুধ খাতের উন্নয়নে ইরাক বাংলাদেশের সঙ্গে একযোগে কাজ করতে আগ্রহী। শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সঙ্গে ইরাকের শিল্প ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রী খালিদ বটল নাজিম বুধবার এক দ্বি-পাক্ষিক বৈঠকে এ আগ্রহ ব্যক্ত করেন। 

রাজধানীর মতিঝিলে শিল্প মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠেয় বৈঠকে ইরাকের শিল্প ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রী বন্ধু প্রতীম দেশ হিসেবে বাংলাদেশের সঙ্গে ইরাকের বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করার সুযোগ রয়েছে বলে উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, আমরা চামড়া, বস্ত্র ও ওষুধ খাতে একযোগে কাজ করতে চাই।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে ইরাকের পরিকল্পনা উপমন্ত্রী আহমেদ আব্দুল জব্বার আলী আল করিম, শিল্প সচিব জাকিয়া সুলতানা, ঢাকাস্থ ইরাক দূতাবাসের চার্জ দ্যা এফেয়ার্স এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এ বৈঠকে ইরাকের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে বলেন, বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও শিল্পায়নে ইরাক গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। তিনি অভিন্ন স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পারস্পরিক সহযোগিতার ভিত্তিতে কাজ করার ওপর গুরুত্ব  আরোপ করেন।

তিনি বলেন, দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশে সবচেয়ে উদার বৈদেশিক বিনিয়োগ পরিস্থিতি বিদ্যমান। সরকারের পক্ষ থেকে কর অবকাশ সুবিধা, বিভিন্ন খাতে হ্রাসকৃত কর, রফতানি প্রণোদনা এবং অন্যান্য অর্থনৈতিক প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে। 

শিল্পমন্ত্রী বলেন, ইরাকের বিনিয়োগকারীরা এ সুযোগ কাজে লাগাতে পারে। একইভাবে বাংলাদেশে উৎপাদিত গার্মেন্টস পণ্য, পাটজাতপণ্য, চামড়াজাত দ্রব্যাদি এবং ওষুধ আমদানি করে ইরাক লাভবান হতে পারে।

এছাড়াও বৈঠকে ইরাকে বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজীকরণ, অবৈধ বাংলাদেশি অভিবাসীদের বৈধকরণ এবং বাংলাদেশ থেকে আরো জনশক্তি নেয়ার বিষয়েও আলোচনা করা হয়।