• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী কোনো অজুহাতেই যৌন নিপীড়ককে ছাড় নয়: শিক্ষামন্ত্রী স্পর্শকাতর মামলার সাজা নিশ্চিত করতে হবে: আইজিপি চলতি মাসেই একাধিক কালবৈশাখীর শঙ্কা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশদ্রোহীরা মানুষকে কষ্ট দেয়: নাছিম

ভূমিকম্পের ঝুঁকি মোকাবিলায় ১০ সুপারিশ

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩  

ভূমিকম্পের ঝুঁকি মোকাবিলায় ১০ দফা সুপারিশ করেছে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি। ‘ভূমিকম্পের ক্ষয়ক্ষতি রোধে করণীয়’ বিষয়ক ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতা এসব সুপারিশ করা হয়।

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে এফডিসিতে অনুষ্ঠেয় এ ছায়া সংসদে সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ।

প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ভূমিকম্প সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা মহাসচিব ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মেহেদী আহমেদ আনসারী। 

এতে অংশ নেয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এবং বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়। ডিবেট প্রতিযোগিতায় প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় বিজয়ী হয়। 

প্রতিযোগিতায় বিচারক ছিলেন অধ্যাপক আবু মুহাম্মদ রইস, অধ্যাপক ড. তাজুল ইসলাম চৌধুরী তুহিন, সাংবাদিক শাহরিয়ার অনির্বাণ ও স্থপতি সাবরিনা ইয়াসমিন মিলি। ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ ভূমিকম্পের ঝুঁকি মোকাবিলায় ১০ দফা সুপারিশ করেন -

১) বিল্ডিং কোড বাস্তবায়নে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় এর নেতৃত্বে একটি রোডম্যাপ তৈরি করা।

২) ভবন নির্মাণে ভূমিকম্প সহনশীলতা নির্দেশিকা মানতে বাধ্য করা।

৩) ঝুঁকিপূর্ণ সরকারি ও বেসরকারি স্থাপনা চিহ্নিত করে এগুলোকে ভূমিকম্প সহনীয় করা।

৪) ভবন নির্মাণে সকল উপকরণের পরীক্ষার জন্য রিসার্চ, ট্রেনিং ও টেস্টিং ল্যাবরেটরি স্থাপন নিশ্চিত করা

৫) ভূমিকম্প ঝুঁকি হ্রাস ও উদ্ধার তৎপরতা জোরদারের জন্য সংশ্লিষ্ট সংস্থার সক্ষমতা বাড়ানো।

৬) ভূমিকম্প ঝুঁকি হ্রাস সম্পর্কিত তথ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের অবহিত করা।

৭) প্রতি ৩ মাস পর পর ভূমিকম্প পরবর্তী উদ্ধার কাজে দায়িত্বপ্রাপ্ত সংস্থাসমূহের সমন্বয় ও প্রস্তুতি পর্যালোচনা করা এবং মহড়া নিশ্চিত করা।

৮) ভবন নির্মাণে নকশার ব্যত্যয় রোধে ভবনের অনুমোদিত নকশা অনলাইনে দেওয়া।

৯) বড় ধরনের দুর্যোগ মোকাবেলায় তাৎক্ষণিক ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ ও ব্যয় নির্বাহের জন্য বাজেট বরাদ্দ রাখা।  

১০) রাজধানীর প্রতি ওয়ার্ডে আরবান রেসকিউ টিম তৈরি করে তাদের প্রশিক্ষিত করা।