• শুক্রবার   ২২ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ৬ ১৪২৮

  • || ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
পূর্বাচলে বঙ্গবন্ধু এক্সিবিশন সেন্টার উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী একই দিনে উদ্‌যাপিত হলো তিন ধর্মের উৎসব চীন থেকে এলো আরো ৫৫ লাখ সি‌নোফা‌র্মের টিকা শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশে সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের ছাড় দেওয়া হবে না ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী যেই হোক ব্যবস্থা নেয়া হবে’

পূজায় যেখানে ভালমন্দ রান্না হবে সেখানেই হাজির হবো: জয়া আহসান     

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ অক্টোবর ২০২১  

বছর ঘুরে ঢাকের তালে এসেছে দেবী দুর্গা। ব্যস্ত হয়েছেন সনাতন ধর্মাবলম্বী সকল শ্রেণি-পেশার মানুষ। ঘরে ঘরে বিরাজ করছে উৎসবের আনন্দ। দেবী দুর্গার অন্য সব ভক্তদের পাশাপাশি দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানও সমানভাবে উৎফুল্ল। কাজের সূত্রে নিয়মিত কলকাতায় যাওয়া-আসা করতে হয় জয়া আহসানকে। এবারও তিনি কলকাতায় এবং সেখানেই দুর্গাপূজা উদযাপন করবেন।

আনন্দবাজার পত্রিকায় দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জয়া বলেছেন, পূজার চারটে দিন নিজের মতো করে কাটাব। আমার পূজা মানেই আড্ডারূপেণ সংস্থিতা! বন্ধুদের বাড়ি যাওয়া, মন খুলে কথা, হাসাহাসি। পূজায় বেশ কিছু বন্ধুর বাড়ি যাওয়ার নেমন্তন্ন ইতোমধ্যেই পেয়ে গেছি। তাই কোথায় আড্ডা দেব, তা নিয়ে আলাদা করে চিন্তা করতে হচ্ছে না। কিন্তু পেটপূজা ছাড়া আবার আড্ডা হয় নাকি। আমি খুবই খাদ্যরসিক। অভিনয় করলেও খাওয়াদাওয়ায় কোনো রকম বিধিনিষেধ চলবে না। যখন যা ইচ্ছে, তাই খেয়ে নিই। পূজাতেও ভালমন্দ খাবার চাই-ই চাই! যে দিন যে বন্ধুর বাড়িতে ভালমন্দ রান্নাবান্না হবে, সে দিন সেখানেই গিয়ে হাজির হব। তবে দিনভর যা-ই খাই, যতই খাই, শেষ পাতে মিষ্টি লাগবেই আমার।

পূজায় সাজ নিয়ে জয়া জানিয়েছেন, উৎসবের দিনগুলোয় শাড়িই আমার প্রিয় সাজ। কিন্তু ইচ্ছা হলে অন্যান্য পোশাকও পরি। সাজগোজ করব, টইটই ঘুরব শহরের এ দিক-সে দিক। মন ভরে দেখে নেব কলকাতাকে। করোনা অতিমারিকে সঙ্গী করে এই আমাদের দ্বিতীয় পূজা। আনন্দ আছে। আছে মন খারাপও। তবে মা এসেছেন। এবার একটু একটু করে ঠিক সব কিছু আগের মতো হবে। আমরা আবার প্রাণ খুলে হাসতে শিখব। বাঁচতে শিখব। এই পূজাতে এটাই আমার মায়ের কাছে চাওয়া।