• বৃহস্পতিবার   ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৯ ১৪২৯

  • || ০৯ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়াতে মুসলিমদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান সংখ্যালঘু বলতে কোনো শব্দ নেই, আমরা সবাই বাঙালি: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আইএমএফের ঋণই প্রমাণ করে দেশের অর্থনীতির ভিত্তি মজবুত: অর্থমন্ত্রী করোনা মহামারির মধ্যেও বাংলাদেশের অর্থনীতি ৩.৮% প্রসারিত হয়েছে শিক্ষা নিয়ে ব্যবসা করার মানসিকতা পরিহার করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

অর্থ ফেরাতে মালয়েশিয়ার সহযোগিতা চেয়েছে দুদক 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০২২  

অর্থ ফেরাতে মালয়েশিয়ার সহযোগিতা চেয়েছে দুদক                      
বেসিক ব্যাংকের পাচার হওয়া অর্থ ফেরত আনতে মালয়েশিয়া সরকারের সহযোগিতা চেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ-সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন হাইকোর্টে গেছে বলে গতকাল শনিবার জানিয়েছেন দুদক আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

আইনজীবী খুরশিদ আলম বলেন, বেসিক ব্যাংকের পাচার হওয়া অর্থ ফেরত আনা ও কিছু তথ্য-উপাত্তের জন্য দুদক মালয়েশিয়া সরকারের সহযোগিতা চেয়েছে। এ-সংক্রান্ত প্রতিবেদন আমরা এফিডেভিট করেছি। আগামী সোমবার বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

এর আগে গত ৮ নভেম্বর হাইকোর্ট বলেন, যারা বেসিক ব্যাংকের ৪ হাজার কোটি টাকা লুটপাট করেছে, পাচার করেছে, তাদের ‘শুট ডাউন’ করা উচিত। বেসিক ব্যাংকের অর্থ পাচারের মামলার আসামি মোহাম্মদ আলীসহ তিনজনের জামিন শুনানিকালে বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ এমন মন্তব্য করেন।

আদালতে আসামির আইনজীবী আবুল হোসেন বলেন, পাঁচ বছর পার হয়ে গেলেও দুদক মামলায় চার্জশিট দিচ্ছে না। বিচারও শেষ হচ্ছে না।

তখন আদালত বলেন, অর্থ পাচারকারীরা জাতির শত্রু। কেন এসব মামলার ট্রায়াল হবে না? দুদককে প্রশ্ন রেখে বলেন, কেন চার্জশিট দিচ্ছেন না? অর্থ লুটপাট, পাচারের মামলার সামারি ট্রায়াল হওয়া উচিত। যারা জনগণের টাকা আত্মসাৎ করে তাদের শুট করা উচিত। এটাই তাদের শাস্তি হওয়া উচিত।