• বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ১১ ১৪৩১

  • || ১৫ শাওয়াল ১৪৪৫

সর্বশেষ:
যুদ্ধের অর্থ জলবায়ু পরিবর্তনে ব্যয় হলে বিশ্ব রক্ষা পেত- প্রধানমন্ত্রী দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ বিদ্যুৎ উৎপাদনের রেকর্ড মেডিকেল কলেজের ক্লাস অনলাইনে নেয়ার নির্দেশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর ‘গণতান্ত্রিক রীতিনীতি না মানলে জনগণই বিএনপিকে প্রতিহত করবে’ লালমনিরহাটে হত্যা মামলায় বিএনপির দুই নেতা কারাগারে

শরীরে ভিটামিন ডি-র ঘাটতি মেটানোর উপায়

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩১ জানুয়ারি ২০২৩  

শরীরকে সুস্থ রাখার জন্য ভিটামিন ডি- এর গুরুত্ব অনেক। ভিটামিন ডি আমাদের হাড় ও পেশীর স্বাস্থ্য ভালো রাখে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। কিন্তু খাবার থেকে খুব বেশি ভিটামিন ডি পাওয়া যায় না, যার কারণে বেশিরভাগ মানুষের শরীরেই ভিটামিন ডি এর ঘাটতি দেখা যায়।
 
তবে প্রতিদিনের জীবনযাত্রায় সামান্য কিছু বদল আনলেই শরীরে এই ভিটামিনের ঘাটতি মেটানো সম্ভব। 

জেনে নিন শরীরে ভিটামিন ডি এর পরিমাণ বাড়াতে কী করবেন-

সূর্যের আলোতে দাঁড়ান কিছুক্ষণ: ভিটামিন ডি- কে প্রায়শই "সানশাইন ভিটামিন" হিসাবে উল্লেখ করা হয় কারণ  সূর্য রশ্মি হলো ভিটামিন ডি এর সবচেয়ে বড় উৎস। প্রতিদিন ভোরে অন্ততপক্ষে ১৫-২০ মিনিট রোদ পোহানো উচিত।

খাদ্যতালিকায় ডিমের কুসুম রাখুন: আপনার খাদ্য তালিকায় রাখুন ডিমের কুসুম। কেননা ডিমের কুসুম হলো ভিটামিন ডি এর আরেকটি উৎস যা আপনি সহজেই আপনার রুটিনে যোগ করতে পারেন।

বেশি করে মাশরুম খান: মাশরুমে রয়েছে প্রচুর ভিটামিন ডি। তাই খাবারের তালিকায় সব সময় রাখুন মাশরুম। মাশরুম ধোওয়ার পরে এক ঘণ্টার জন্য সূর্যের আলোয় রেখে দিতে পারেন। এতে মাশরুমে ভিটামিন ডি এর পরিমাণ আরো বাড়বে।

চর্বিযুক্ত মাছ এবং সামুদ্রিক খাবার খান: চর্বিযুক্ত মাছ এবং সামুদ্রিক খাবার ভিটামিন ডি এর  প্রাকৃতিক খাদ্য উত্সগুলোর মধ্যে অন্যতম। প্রতিদিন খাদ্য তালিকায় চর্বিযুক্ত মাছ এবং সামুদ্রিক খাবার রাখা উচিৎ।

সাপ্লিমেন্টের সাহায্য নিন: গর্ভবতী নারী, বাচ্চা, যাদের মেনোপজ চলছে এবং ৬৫ বছরের বেশি বয়সী ব্যক্তিদের সাধারণত ভিটামিন ডি সাপ্লিমেন্ট দেওয়া হয়। শরীরে প্রয়োজনীয়তার উপর নির্ভর করে মাল্টিভিটামিন বা ভিটামিন ডি সাপ্লিমেন্ট নিতে পারেন। তবে এসব গ্রহণ করার আগে অবশ্যই একবার চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়াটা জরুরি।

ফোর্টিফায়েড খাবার: ভিটামিন ডি পাওয়া যায় এমন সব খাবারের সংখ্যা খুবই কম। তাই, এমন অনেক ফোর্টিফায়েড ফুড রয়েছে যার মধ্যে অতিরিক্ত পুষ্টি উপাদান থাকে। এর মধ্যে রয়েছে গরুর দুধ, সিরিয়াল, টোফু, পনির, দুধ, সোয়া মিল্ক ও কমলালেবুর জুস। তাই খাদ্য তালিকায় এসব খাবার যোগ করা উচিৎ।