• মঙ্গলবার   ০৪ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৮ ১৪২৯

  • || ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
মুজিববর্ষে সরকারি ঘর পেয়েছে প্রায় ২ লাখ পরিবার: প্রধানমন্ত্রী আগামী প্রজন্মের জন্য পরিকল্পিত নগরায়ণের বিকল্প নেই: রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশ অঞ্চলের ৫০ লাখ ভিডিও সরিয়েছে টিকটক: টেলিযোগাযোগমন্ত্রী করতোয়ায় দেশের বৃহত্তম ওয়াই ব্রিজ হবে: রেলমন্ত্রী সুজন বিএনপি সুযোগ পেলে আবার নির্যাতন চালাবে: তোফায়েল আহমেদ

এসসিও জোটে যোগ দিচ্ছে বেলারুশ

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২২  

এসসিও জোটে যোগ দিচ্ছে বেলারুশ                        
সাংহাই সহযোগিতা সংস্থায় (এসসিও) যোগদান করছে বেলারুশ। এরইমধ্যে জোটে দেশটির অন্তর্ভুক্তির কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শুক্রবার উজবেকিস্তানের প্রেসিডেন্ট শভকাত মির্জিয়েভ এ তথ্য জানিয়েছেন। শভকাত মির্জিয়েভ বলেন, এসসিও জোটের পূর্ণ সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্তির জন্য রিপাবলিক অব বেলারুশের কার্যক্রম প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। 

উজবেকিস্তানের প্রেসিডেন্ট বলেন, আজ এসসিও জোটের পূর্ণ সদস্য হিসেবে ইসলামী প্রজাতন্ত্র ইরানের বাধ্যবাধকতা সম্পর্কে একটি স্মারক স্মাক্ষর হয়েছে। এছাড়া আমরা আরব রিপাবলিক অব মিশর এবং কাতারকে সংলাপের অংশীদারের জন্য সমঝোতা স্বাক্ষরের আহ্বান জানাই। 

মির্জিয়েভ বলেন, বাহরাইন, কুয়েত, মালদ্বীপ, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও মিয়ানমারকে সংলাপের অংশীদার হাওয়ার প্রক্রিয়া গ্রহণ করা হয়েছে।

এসসিও জোট ২০২১ সালের জুনে সাংহাইতে প্রতিষ্ঠিত হয়। তখন ছয়টি দেশ জোটটিতে অংশ নেয়। তারমধ্যে ছিল রাশিয়া, কাজাখাস্তান, কিরগিজস্তান, চীন, তাজিকিস্তান ও উজবেকিস্তান। জোটটি এখন ভারত ও পাকিস্তানকে সংযুক্ত করেছে। এসসিও জোট আফগানিস্তান, বেলারুশ, ইরান ও মঙ্গোলীয়াকে নিজেদের সংগঠনে অন্তভুক্তি করতে যাচ্ছে। এছাড়া আর্মেনিয়া, আজারবাইজান, কম্বোডিয়া, নেপাল, তুরস্ক ও শ্রীলংকাকে জোটে নেবে তারা।  ২০২১ সালের সেপ্টেম্বরে তাজিকিস্তানের রাজধানী দুশানবে এসসিও সংগঠনের সম্মেলনে ইরানকে সংযুক্তির প্রক্রিয়া শুরু হয়। এবার এসসিও -এর পূর্ণ সদস্য হতে আবেদন করেছে বেলারুশ।

পশ্চিমা জোট ন্যাটোর প্রভাব কমাতে এসসিও জোট বা সংগঠনকে প্রতিষ্ঠিত করা হয়েছে বলে অনেক বিশ্লেষকরা মনে করেন। এরইমধ্যে পশ্চিমাদের হাতে নানাভাবে নিপীড়িত ও বঞ্চিত দেশগুলো জোটের দিকে অগ্রসর হচ্ছে।

সূত্র-তাস।