• রোববার ১৪ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • চৈত্র ৩০ ১৪৩০

  • || ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

ইমরান খানের পিটিআইয়ের জন্য বড় ধাক্কা

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৫ মার্চ ২০২৪  

পার্লামেন্টের সংরক্ষিত আসন পাবে না পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) সমর্থিত সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিল (এসআইসি)।

সোমবার (৪ মার্চ) দেশটির নির্বাচন কমিশন এ সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে। কমিশনের এই সিদ্ধান্ত ইমরান খানের দল পিটিআইয়ের জন্য আরেকটি বড় ধাক্কা হিসেবে এসেছে।

সংখ্যাগরিষ্ঠ মতামতের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পাকিস্তান নির্বাচন কমিশন (ইসিপি)। পাঁচ সদস্যের নির্বাচন কমিশনের চারজন এসআইসিকে সংরক্ষিত আসন না দেওয়ার পক্ষে মত দেন। অন্যজন এ সিদ্ধান্তের বিপক্ষে মত দিয়েছেন।

রায়ে ইসিপি বলেছে, নারীদের সংরক্ষিত আসনের জন্য অগ্রাধিকার তালিকা জমা দেওয়ার সময়সীমা বৃদ্ধি করা হয়েছিল। এরপরও ৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনের আগে এসআইসি প্রয়োজনীয় তালিকা জমা দেয়নি। এই তালিকা জমা দেওয়া বাধ্যতামূলক ছিল। এই কারণে তাদের সংরক্ষিত আসন বরাদ্দ দেওয়া হয়নি।

পাকিস্তানের জাতীয় পরিষদে মোট ৩৩৬টি আসন রয়েছে। এর মধ্যে ৭০টি আসন সংরক্ষিত। নারীদের ৬০টি ও সংখ্যালঘুদের জন্য ১০টি। জাতীয় পরিষদে রাজনৈতিক দলের প্রাপ্ত আসনের বিপরীতে এসব আসন বরাদ্দ দেওয়া হয়ে থাকে।

৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে সরাসরি অংশগ্রহণ করতে পারেনি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পিটিআই। তাই নির্বাচনে জয়ী পিটিআই-সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা জাতীয় পরিষদের সংরক্ষিত আসনের ভাগ পেতে সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিলে যোগ দেন। যোগদানের পর সংরক্ষিত আসনের জন্য তারা ইসিপির কাছে আবেদন করেন। তাদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্তের কথা জানাল ইসিপি।