• বৃহস্পতিবার ৩০ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪৩১

  • || ২১ জ্বিলকদ ১৪৪৫

পিরিয়ড চলাকালীন ভুলেও যে কাজ করবেন না

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩  

পিরিয়ড হলেই শরীরে অস্বস্তি, শরীর দুর্বল, কোমর, তলপেটে ব্যথা এসব নিয়ে কাহিল হয়ে পড়েন। দিনের শেষে অফিস-পরিবার সব সামলেও অসহ্য যন্ত্রণা সহ্য করে দিন কাটাতে হয় মেয়েদের।

পিরিয়ডস মানেই এখনও একটা ছুৎমার্গ। এটা বারণ ওটা বারণ লেগেই রয়েছে। নিয়মের এই বেড়াজালে এখনও জড়িয়ে রয়েছে মেয়েরা। প্রতিমাসে এই পিরিয়ডস-এর বেড়াজালে আটকে পড়েন আজকের সমাজের মেয়েরা। এখনও পুরোনো ধ্যান ধারণা থেকে সমাজ বেরিয়ে আসতে পারে নি। আর সেই নিয়ম কানুন মেলে চলছে নারীজাতির একাংশ। পিরিয়ড চলাকলীন যৌন মিলন করা উচিত কিনা, এই নিয়ে অনেকের মনেই প্রশ্ন রয়েছে। কিন্তু লজ্জার কারণে এই নিয়ে অনেকেই মুখ খুলতে পারেন না। এই নিয়ে হাজার লোকের হাজারো মত, কিন্তু বিশেষজ্ঞেরা বা কী বলছেন।

বিশেষজ্ঞদের মতে, পিরিয়ডস চলাকালীন প্রথম দুইদিন ইস্ট্রোজেন ও টেস্টোটেরন কম পরিমাণে নির্গত হয়। পিরিয়ডসের তৃতীয় দিন থেকে এর পরিমাণ আরো বৃদ্ধি পায়। এই সময়ে যৌন মিলনে দেহে হরমোন নিঃসরণের কারণে পেটে ব্যথা অনেকটাই কম হয়। পিরিয়ডসের সময় নারীদের মুড সুইং হয়। 

বিশেষ করে মাথা ব্যথা, পেট ব্যথা তো অনেকেরই হয়ে থাকে। কেউ কেউ আবার মানসিক চাপ, অবসাদে ভুগে থাকেন। পেটে ব্যথা, হাতে-পায়ে ব্যথার কারণে মেজাজও খিটখিটে হয়ে যায়।

বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই সময়ে যৌন মিলন করলে মনও ভালো হয়ে যায়। পিরিয়ডস চলাকালীন সাধারণত নারীদের যৌন ইচ্ছা বৃদ্ধি পায়। এই সময়ে ভ্যাজাইনা লুব্রিকেটেড থাকে যার ফলে মিলন সুগম হয়।