• শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৭ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দুধ খেয়েও মেদ ঝরানোর উপায় আছে

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১ মার্চ ২০২৩  

শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় একটি পানীয় হচ্ছে দুধ। ক্যালশিয়াম, জ়িঙ্ক, ম্যাগনেশিয়াম, ভিটামিন বি১২, ভিটামিন ডি-এর মতো যৌগে ভরপুর এই পানীয়। শিশুদের জন্যতো অবশ্যই বড়দেরও জন্য সমান উপকারী। কিন্তু এই মেদ ঝরিয়ে ছিপছিপে হতে গিয়ে ডায়েট থেকে দুধ একেবারে বাদ দিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু পুষ্টিবিদদের একাংশ মনে করেন, দুধ দিয়ে তৈরি এমন কিছু পানীয় আছে যা ভাত, রুটির বদলে খাওয়া যায়।

অতএব বাড়তি ক্যালোরি নিয়ে চিন্তাও থাকে না। কিন্তু কী ভাবে বানাবেন তেমন পানীয়? দুধ দিয়ে বানানো যায় এমন দুইটি পানীয় তৈরির রেসিপি জেনে নিন।

কলা এবং চিয়া বীজের পুডিং:
উপকরণ:  কাঠবাদামের দুধ: ১ কাপ, গ্রিক ইয়োগার্ট: আধা কাপ, মেপল সিরাপ: ১ টেবিল চামচ, ভ্যানিলা: আধা চা চামচ, 
চিয়া বীজ: আধা কাপ, কলা: ১টি, স্ট্রবেরি কুচি: আধা কাপ, ব্লুবেরি: আধা কাপ, নারকেল কুচি: আধা কাপ।

প্রণালী:  প্রথমে একটি পাত্রে দুধের সঙ্গে মেপল সিরাপ এবং ভ্যানিলা এসেন্স ভাল করে মিশিয়ে নিন। এরপর দিন চিয়া বীজ। এবার ঢাকা দিয়ে সারা রাত ফ্রিজে রেখে দিন। পরের দিন সকালে ফ্রিজ থেকে চিয়া বীজের মিশ্রণ বার করার আগে শুকনা খোলায় নারকেল কুচি একটু নেড়ে নিন। এরপর ফ্রিজ থেকে পুডিং বার করে, মিশিয়ে নিন স্ট্রবেরি, ব্লুবেরি এবং কলা। ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে ছোট বাটিতে তুলে উপর থেকে নারকেল কুচি ছড়িয়ে নিন।

ছাতুর মিল্কশেক:

উপকরণ: গুড়: ৩ টেবিল চামচ, ছোট এলাচ: আধ চা চামচ, কেশর: এক চিমটি, কাজুবাদাম: ৫টি, কাঠবাদাম: ৫টি, ছোলার ছাতু: ১ কাপ, দুধ: ৫০০ মিলি।

প্রণালী:  প্রথমে ব্লেন্ডারে দুধ, ছাতু, ছোট এলাচ গুঁড়া, কেশর এবং গুড় একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। এবার গ্লাসে ঢেলে উপর থেকে ছড়িয়ে দিন কাজু এবং কাঠবাদামের কুচি।