• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৫ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

কখন বুঝবেন জিম করা বন্ধ করতে হবে

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২ আগস্ট ২০২৩  

কখন বুঝবেন জিম করা বন্ধ করতে হবে                                        
নিয়ম করে অনেকেই প্রতিদিন জিম করেন। তবে জিম করলেই আপনি সুস্বাস্থ্যের অধিকারী হবেন তা কিন্তু নয়। শারীরিকভাবে কিছু লক্ষণ দেখা দিলে সঙ্গে সঙ্গেই জিম করা বন্ধ করতে হবে। চলুন জেনে আসি লক্ষণগুলো: 

পেশিতে টান 
শরীরচর্চার সময় পেশিতে টান লাগা ভালো লক্ষণ নয়। শরীরে পর্যাপ্ত পানি থাকলে পেশিতে টান পড়বে না। কিন্তু ডিহাইড্রেশনে ভুগলে পেশিতে টান পড়ে ও এমন হলে সঙ্গে সঙ্গে জিম করা বন্ধ করুন। 

শরীর দুর্বল লাগে
অনেক সময় মনে হয় শরীরচর্চা করলে দুর্বলতা কেটে যাবে। তবে সেক্ষেত্রে লক্ষ্য করুন বুক ঢিপঢিপ, মাথা ঘোরা ও দৃষ্টিতে সমস্যা হলে অবশ্যই জিমে যাবেন না। বরং বাড়িতে বিশ্রাম নিন। পর্যাপ্ত ঘুম, প্রচুর পানি ও খাবার খান। 

মাথাব্যথা হলে
যখন মাথাব্যথা হবে তখন সেটা স্বাভাবিক। কিন্তু এই গরমে ডিহাইড্রেশন থেকেও মাথাব্যথা হয়। তাই মাথাব্যথা হলে পানি পান করুন ধারাবাহিকভাবে৷ যদি মাথাব্যথা সহজে দূর না হয় তাহলে জিম না করাই ভালো। 

মুখ শুকিয়ে যাওয়া
অনেক সময় ট্রেডমিল ও ভারোত্তলনের ফলে শরীরে পানিশূণ্যতা সৃষ্টি হয়। এসিতে অনেকক্ষণ ঘাম ঝরার বিষয়টি খেয়াল হয়তো করা হয় না। গলা ও মুখের ভেতর শুকিয়ে গেছে কি-না লক্ষ্য করুন। যদি এমন হয় তাহলে আপনার শরীরে পানিশূণ্যতা দেখা দিয়েছে। তখন শরীরচর্চা বন্ধ করে পানি পান করুন এবং বিশ্রাম করুন। 

সূত্র: হেলথইন