• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

  • || ২৩ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী কোনো অজুহাতেই যৌন নিপীড়ককে ছাড় নয়: শিক্ষামন্ত্রী স্পর্শকাতর মামলার সাজা নিশ্চিত করতে হবে: আইজিপি চলতি মাসেই একাধিক কালবৈশাখীর শঙ্কা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশদ্রোহীরা মানুষকে কষ্ট দেয়: নাছিম

ভারতীয় নাগরিক বৃদ্ধের মৃত্যু, অনুমতিক্রমে বাংলাদেশেই সৎকার হলো

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০২২  

বড় মেয়ে জামাইয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসে নীলফামারীর ডিমলায় মৃত্যু হয়েছে অনিল চন্দ্র রায়(৭২) নামে ভারতীয় এক নাগরিকের। তিনি ভারতের জলপাইগুড়ি জেলার ডেঙ্গুয়ারঝাড় উত্তর বরুয়াপাড়া এলাকার মৃত প্যারী মোহন রায়ের ছেলে। ভারতীয় হাই কমিশনের অফিসের অনুমতিক্রমে শুক্রবার (২৯ জুলাই) সকাল ১০টায় বাংলাদেশের নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার নিজপাড়া শশ্মানে ওই বৃদ্ধের মরদেহ সৎকার করেন আত্বীয়স্বজনরা। এ সময় ডিমলা থানার পুলিশ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্র জানায়, চলতি বছরের ৬ জুলাই ৩০ দিনের ভিসায় ওই বৃদ্ধ ডিমলা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দক্ষিণ তিতপাড়া গ্রামের জামাতা কৈলাশ চন্দ্র রায় ও বড় মেয়ে অঞ্জলী রানী রায়ের বাড়িতে  বেড়াতে আসেন। বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) সকাল সাড়ে নয়টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে  জামাতার বাড়িতে মারা যান তিনি। 

জামাতা কৈলাশ চন্দ্র জানান, বিষয়টি পুলিশ প্রশাসন ও ভারতীয় হাই-কমিশনকে অবহিত করা হয়। তিনি জানান, পাঁচ মেয়ের মধ্যে শুধু বড় মেয়েরই বিয়ে হয় বাংলাদেশে। আমার তিন চাচা শ্বশুড় ডিমলার বাসিন্দা। আমার শ্বশুড়ের সৎকার এখানে করার জন্য আমরা ভারতীয় হাই কমিশনে লিখিত আবেদন করি। রাতে সেই আবেদনের জবাবে বাংলাদেশের ডিমলায় লাশ সৎকারের অনুমতি দেয় ভারতীয় হাইকমিশন অফিস।ডিমলা থানার ওসি লাইছুর রহমান  বিষয়টি নিশ্চিত করেন।