• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

  • || ২৩ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী কোনো অজুহাতেই যৌন নিপীড়ককে ছাড় নয়: শিক্ষামন্ত্রী স্পর্শকাতর মামলার সাজা নিশ্চিত করতে হবে: আইজিপি চলতি মাসেই একাধিক কালবৈশাখীর শঙ্কা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশদ্রোহীরা মানুষকে কষ্ট দেয়: নাছিম

ডিমলায় স্কুলছাত্রীর বিয়ে বন্ধ করে লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন ইউএনও

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১১ অক্টোবর ২০২২  

নীলফামারীর ডিমলায় সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীর বাল্যবিয়ে বন্ধ করে লেখাপড়ার দায়িত্ব নিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বেলায়েত হোসেন। সোমবার (১০ অক্টোবর) দুপুরে ওই স্কুলছাত্রীর বিয়ে হওয়ার কথা ছিল।

স্থানীয় ও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেলায়েত হোসেন বাল্যবিয়ের আয়োজন বন্ধ করে দেন। পরে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে বিশদ আলোচনা করে ওই শিক্ষার্থীর সঙ্গে একান্তে কথা বলেন। তখন তিনি জানতে পারেন, জোর করে বিয়ে দিচ্ছে তার বাবা-মা। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে ভুল স্বীকার করে স্কুলছাত্রীর বয়স ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে না দেওয়ার কথা দিয়ে অঙ্গীকার নামায় স্বাক্ষর করেন বাবা-মা। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বেলায়েত হোসেন  বলেন, আমি মেয়েটার সঙ্গে কথা বলে দেখলাম, তার পড়ালেখায় আগ্রহ আছে। বিয়েতে তার মত ছিল না। আমি তার বাবা-মাকে বাল্যবিয়ের কুফল সর্ম্পকে বুঝিয়েছি। তার বাবা-মা আমাকে কথা দিয়েছেন ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না। যেহেতু মেয়েটার পড়াশোনায় আগ্রহ আছে এবং তার বাবা-মা ১৮ বছর পূর্ণ না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেন না বলেছেন, তাই পড়াশোনার সকল দায়িত্ব আমি নিয়েছি।