• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২০ ১৪৩০

  • || ২২ শা'বান ১৪৪৫

সর্বশেষ:
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী কোনো অজুহাতেই যৌন নিপীড়ককে ছাড় নয়: শিক্ষামন্ত্রী স্পর্শকাতর মামলার সাজা নিশ্চিত করতে হবে: আইজিপি চলতি মাসেই একাধিক কালবৈশাখীর শঙ্কা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশদ্রোহীরা মানুষকে কষ্ট দেয়: নাছিম

নীলফামারীতে বাড়ছে ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যা

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৫ জানুয়ারি ২০২৪  

নীলফামারীতে তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশায় শিশু ও বয়স্করা জ্বর-সর্দি, ডায়রিয়া, শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়াসহ ঠাণ্ডাজনিত বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে ভিড় করছেন আক্রান্তরা।

সোমবার (১৫ জানুয়ারি) নীলফামারী জেনারেল হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে শীতজনিত রোগীদের উপচে পড়া ভিড় দেখা যায়।

বাবুপাড়া এলাকার সুমনা আক্তারের মা বলেন, 'আমার ছেলের হঠাৎ রাত থেকে খুব জ্বর শুরু হয়েছে। এজন্য হাসপাতালে নিয়ে এসেছি।'

জলঢাকা থেকে চিকিৎসা নিতে আসা আলম নামে এক বৃদ্ধ জানায়, 'আমার শ্বাস-কষ্টের সমস্যা এজন্য চিকিৎসা নিতে এসেছি। খুব ঠান্ডার কারণে আমার সমস্যা হচ্ছে। এজন্য দুইদিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি আছি।'

শিশু ওয়ার্ডের ইনচার্জ নার্স মনিরা বেগম বলেন, 'এখানে প্রতিদিন গড়ে ২৫ থেকে ৩০ জন শিশু রোগী ভর্তি হচ্ছে। আর এখান থেকে প্রতিদিন ৫০ জনের উপরে শিশু চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরছে। ঠান্ডা জনিত কারণে শিশুদের রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।'

হাসপাতালের শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডা. আব্দুল আউয়াল বলেন, 'শীতের প্রকোপ অনেক বেড়ে গেছে। কনকনে ঠান্ডায় ডায়রিয়া, নিউমোনিয়া, হাঁপানী, এ্যাজমা ও শ্বাসকষ্টসহ রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। শীতজনিত রোগ দেখা দিলে দ্রুত হাসপাতালে এসে বিশেষজ্ঞ চিকিসকের পরামর্শ নিতে হবে।'

নীলফামারীর সিভিল সার্জন ডা. মো. হাসিবুর রহমান বলেন, 'শীতজনিত রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েছে। এ সময় চলাফেরায় সবাইকে সাবধান হতে হবে। বিশেষ করে শিশু ও বয়স্কদের ঠান্ডা লাগানো একেবারেই যাবে না।' খুব জরুরি প্রয়োজন ছাড়া শিশু ও বৃদ্ধদের তিনি বাড়ির বাইরে বের না হওয়ার পরামর্শ দেন।