• বৃহস্পতিবার   ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৯ ১৪২৯

  • || ০৯ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ফিলিস্তিনিদের পাশে দাঁড়াতে মুসলিমদের প্রতি প্রধানমন্ত্রীর আহ্বান সংখ্যালঘু বলতে কোনো শব্দ নেই, আমরা সবাই বাঙালি: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আইএমএফের ঋণই প্রমাণ করে দেশের অর্থনীতির ভিত্তি মজবুত: অর্থমন্ত্রী করোনা মহামারির মধ্যেও বাংলাদেশের অর্থনীতি ৩.৮% প্রসারিত হয়েছে শিক্ষা নিয়ে ব্যবসা করার মানসিকতা পরিহার করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

অর্থহীন বিভাগীয় সমাবেশ নিয়েই ২০২২ পার করলো বিএনপি

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১০ ডিসেম্বর ২০২২  

দলীয় কোন্দল, অর্থহীন বিভাগীয় সমাবেশ, বিদ্রোহ, দলত্যাগ, দল গোছানো ও কাউন্সিল আয়োজনের ব্যর্থতা নিয়ে ২০২২ সাল পার করেছে বিএনপি। ছাত্রদল, যুবদল পুনর্গঠন নিয়ে নানা নাটকীয়তা, কঠোর আন্দোলনের নামে তামাশা, খালেদা জিয়া-তারেক রহমানের নেতৃত্বের প্রতি অসন্তোষ- সব মিলিয়ে দুর্দশাপূর্ণ বছর পার করলো বিএনপি।

জানা গেছে, ২০২২ সালের শুরুতেই দল গোছানো, দলকে রাজপথমুখী করার কথা থাকলেও পুরো বছরের অধিকাংশ সময় বিএনপির রাজনীতি কেটেছে নয়াপল্টনে প্রেস ব্রিফিং কিংবা প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন করে। দায়িত্বশীল নেতারাও বক্তৃতায় বিএনপির রাজনীতিকে সীমাবদ্ধ রেখেছিলেন।

বিএনপির ঘনিষ্ঠ একাধিক সূত্র বলছে, ২০২২ সালকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছিল বিএনপির হাইকমান্ড। দল গুছিয়ে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে বিভিন্ন দাবি আদায়ে রাজপথে সক্রিয় হওয়ারও ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সেসব ঘোষণা বক্তৃতা ও বক্তব্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। যদিও গুঞ্জন রয়েছে, খালেদা-তারেক বহুবার দল পুনর্গঠন তথা দলকে শক্তিশালী করার নির্দেশ দিলেও সেটি নানা কায়দায় এড়িয়ে গেছেন দলীয় শীর্ষ নেতারা।

বিএনপিকে জাগিয়ে তুলতে এক ধরনের অনীহা রয়েছে মির্জা ফখরুলদের। শীর্ষ নেতাদের ব্যর্থতায় বিএনপিতে নানামুখী কোন্দল মাথাচাড়া দিচ্ছে। বার বার ফাঁকা বুলিতে অতিষ্ঠ ছিল বিএনপি। এর মধ্যে কথায় কথায় সিনিয়র নেতাদের হাতাহাতি, রুমিন ফারহানার মোবাইল ফোন চুরি, শামা ওবায়েদের সঙ্গে বিএনপির হাইকমান্ডের বিভিন্ন নেতার কথোপকথন ফাঁস ছিল অন্যতম। এমনকি একাধিক স্থানে কাউন্সিল আয়োজন করতেও ব্যর্থ হয়েছে বিএনপি। সেই হিসেবে ২০২২ সাল বিএনপির জন্য ব্যর্থতার বছর হিসেবেই প্রতীয়মান হচ্ছে।