• বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯

  • || ১১ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
কম খরচে মাছের ভাসমান খাদ্য তৈরির যন্ত্র উদ্ভাবন শেকৃবি গবেষকের জনবিচ্ছিন্নদের ৭ দলীয় জোট রাজনীতিতে গুরুত্বহীন: তথ্যমন্ত্রী রংপুরে বাল্যবিয়ে ও নারী নির্যাতন বন্ধে শপথ নিলেন ২৫০ রিকশাচালক দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আবারো মনোনয়ন বাণিজ্যে তারেক বঙ্গবন্ধুকে সম্মানসূচক মরণোত্তর ডি-লিট ডিগ্রি দেবে ঢাবি

অজুর সময় যেসব কাজ করা মাকরুহ

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ জুন ২০২২  

ইসলামী আইনে মাকরুহ হচ্ছে এমন কিছু কাজ আছে যা করা জায়েজ কিন্তু না করা উত্তম। এমন কিছু আমল যা পালন করার তুলনায় না করা উত্তম। অর্থাৎ মাকরুহ কাজ করলে শাস্তি পেতে হবে না, কিন্তু এ ধরনের কাজ এড়িয়ে যেতে বলেছে ইসলাম।

অজু নামাজের চাবি। নামাজ বেহেশতের চাবি। নামাজসহ অনেক ফরজ ইবাদতের জন্য ওজু করা আবশ্যক। সেখানেও রয়েছে কিছু বিষয় আছে যা আমাদের উচিত এড়িয়ে চলা বা মেনে চলা। চলুন জেনে নেয়া যাক অজুতে থাকা কয়েকটি মাকরুহ- 
>>> অজুতে পানির অপব্যয় করা। (ইবনে মাজাহ, হাদিস : ৪১৯, আবু দাউদ, হাদিস : ৮৮)

>>> পানি ব্যবহারে অত্যধিক কার্পণ্য করা। (আবু দাউদ, হাদিস : ১১৬, মুসলিম, হাদিস : ৩৫৪)

>>> মুখের ওপর জোরে পানি মারা। (কানজুল উম্মাল : ৯/৪৭৩)

>>> দুনিয়াবি কথা বলা। (ফাতাওয়ায়ে আলমগিরি : ১/৯৮)

>>> অন্যের সাহায্য নেয়া। (মুসনাদে আবি ইয়ালা : ১/২০০) তবে অপারগ অবস্থায় অন্যের সাহায্য নেয়ায় কোনো সমস্যা নেই। (আল মুজামুল কাবির, হাদিস : ৩৮৫৭)

>>> তিনবার মাথা মাসেহ করা এবং প্রতিবার পানিতে হাত ভেজানো। (আবু দাউদ, হাদিস : ১১৬, কানজুল উম্মাল, হাদিস : ২৭০২৪)