• বৃহস্পতিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৯

  • || ১৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

প্রধানমন্ত্রী নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করেছেন: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৬ আগস্ট ২০২২  

প্রধানমন্ত্রী নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করেছেন: আইসিটি প্রতিমন্ত্রী          
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কার্যকর সব পদক্ষেপ গ্রহণের মধ্য দিয়ে নারীর ক্ষমতায়ন নিশ্চিত করেছেন। বৃহস্পতিবার সিংড়া উপজেলা মিলনায়তনে উপজেলা পরিষদের অর্থায়নে ৯১ নারী উদ্যোক্তার মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণের সময় এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নারীদের ক্ষমতায়নের জন্যে তাদের অর্থনৈতিক স্বাবলম্বীতার নির্দেশনা প্রদান করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর নির্দেশনা বাস্তবায়নে পদক্ষেপ গ্রহণ করেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। ১৯৯৬ সালে সরকারের দায়িত্ব গ্রহণ করে তিনি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক পদে চাকরির নিয়োগে নারীদের ৬০ শতাংশ কোটা বরাদ্দ দেন। যুগান্তকারী এ আইনের ফলে পাল্টে গেছে নারীদের সামাজিক অবস্থান। এখন আর যৌতুকসহ অপরিণত বয়সে বিয়ে দিতে মেয়েদের অভিভাবকদের ব্যতিব্যস্ত হতে হয় না। উল্টো ছেলেদের অভিভাবক মেয়েদের কাছে বিয়ের প্রস্তাব নিয়ে আসেন। এর ফলে নারীদের পড়াশুনা নির্বিঘ্ন হয়েছে, তাদের অর্থনৈতিক ও সামাজিক অবস্থান সুসংহত হয়েছে এবং মর্যাদা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রধানমন্ত্রী মাতৃত্বকালীন ভাতারও প্রবর্তন করেছেন। এর ফলে গর্ভাবস্থা থেকে শিশু ভূমিষ্ঠ হওয়া পর্যন্ত মায়েদের আদর-যত্ন নিশ্চিত হয়, নিশ্চিত হয় নিরাপদ প্রসব। এর ফলে দেশ অর্জন করে সুস্থ-সুন্দর ভবিষ্যত প্রজন্ম।

পলক বলেন, ডিজিটাল আর্কিটেক সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরামর্শে সারাদেশে সাড়ে ছয় লাখ ফ্রিল্যান্সার তৈরি  করা হয়েছে, যাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য সংখ্যায় তরুণীরা রয়েছেন। তারা বাড়িতে বসে অনলাইন মার্কেট প্লেসে কাজ করে বৈদেশিক মুদ্রা উপার্জন করছেন। 

পলক আরো বলেন, নারীর শক্তিকে পরিপূর্ণভাবে ব্যবহার করার জন্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ‘আমরা নারী, আমরাই পারি’-এ স্লোগানে ‘হার পাওয়ার’ প্রকল্প কার্যক্রম চালু করেছেন। এ প্রকল্পের মাধ্যমে সম্ভাবনাময় নারী উদ্যোক্তাদের ৫০ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হচ্ছে। নারীদের কর্মক্ষেত্রের বিস্তৃতি ঘটাতে কাজ করছে জয়িতা ফাউন্ডেশনের অনলাইন মার্কেটপ্লেস ‘উইমেন অ্যান্ড ই-কমার্স’। নারী উদ্যোক্তারা শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং অ্যান্ড ইউকিউবেশন সেন্টার আর হাইটেক পার্কেও তাদের স্বাধীন কর্মক্ষেত্র রয়েছে। নারীদের কর্মক্ষেত্রের বিস্তৃতি ঘটাতে স্টার্টআপ কোম্পানি লিমিটেড স্বল্প সুদে নারী উদ্যোক্তাদের পাশে দাঁড়াচ্ছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম সামিরুল ইসলাম অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।