• শনিবার   ২৮ মে ২০২২ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৩ ১৪২৯

  • || ২৫ শাওয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করে অর্থনীতিকে গতিশীল রেখেছে সরকার- প্রধানমন্ত্রী মরণোত্তর দ্যাগ হ্যামারশোল্ড মেডেল পেলেন ২ বাংলাদেশি নীলফামারীতে দুস্থ ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ লিচুকে ঘিরে দিনাজপুরে দৈনিক ১০ কোটি টাকার লেনদেন ‘গুপ্তধন পেতে জিনের বাদশাহকে ৮ লাখ টাকা দিয়েছি’

আন্তর্জাতিক টি-২০ থেকে ৬ মাসের বিরতিতে তামিম 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৮ জানুয়ারি ২০২২  

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের জার্সিতে আগামী ৬ মাস তামিম ইকবালকে টি-২০ খেলতে দেখা যাবে না। তবে টেস্ট ও ওয়ানডে ফরম্যাটে খেলা চালিয়ে যাবেন তিনি।

গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) নিজের ফ্র্যাঞ্চাইজি মিনিস্টার গ্রুপ ঢাকার হয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এসে এমনটাই জানিয়েছেন দেশ সেরা এই ওপেনার।

তবে আগামী ৬ মাস পর বড় কোনো ইভেন্টে দল বা নিজে যদি মনে করেন ফেরা দরকার তখন প্রত্যাবর্তনের কথা ভাববেন বলে জানিয়েছেন তামিম। তবে আপাতত সীমিত ওভারের এই ক্রিকেট থেকে ‘বিরতি’ নিয়ে টেস্ট ও ওয়ানডের দিকে মনোযোগ দিতে চান ৩২ বছর বয়সী ব্যাটার।

গত কয়েকদিন ধরেই তামিমের টি-২০ থেকে অবসর নিয়ে দেশের ক্রিকেট পাড়ায় আলোচনা চলছিল। গত শনিবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন জানান, তামিম আন্তর্জাতিক টি-২০ খেলতে চান না। এরপরই ক্রিকেটাঙ্গনে হইচই পড়ে যায়।

এরপর গত মঙ্গলবার বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের প্রধান জালাল ইউনুস জানান, তামিমের নিজস্ব একটা প্ল্যান আছে, ও সেভাবেই এগোতে চাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের সামনে সেই পরিকল্পনার কথায় জানালেন তামিম। তিনি বলেন, ‘আপনারা তো জানেন, কয়েকদিন ধরে আমার টি-২০ ভবিষ্যৎ নিয়ে বেশ আলোচনা চলছিল। গত কয়েকদিন বিভিন্ন ধরনের মিটিং হয়েছে আমার সঙ্গে। বিসিবি প্রেসিডেন্ট ও বিশেষ করে জালাল ভাইয়ের (জালাল ইউনুস) সঙ্গে।’

এরপর তিনি বলেন, ‘ওনারা চাচ্ছেন আমি টি-২০ চালিয়ে যাই। বিশেষ করে বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তবে আমি টি-২০ ক্রিকেট আগামী ৬ মাস বিবেচনায় রাখছি না। এই ৬ মসে আমার পুরোপুরি ফোকাস থাকবে টেস্ট ও ওয়ানডের দিকে।’

তরুণদের সুযোগ দেওয়া এবং নিজের প্রস্তুতির ঘাটতির কারণে গত টি-২০ বিশ্বকাপ খেলেননি তামিম। এবারও তিনি দলে সুযোগ দিতে চান তরুণদের। মনে করছেন, ৬ মাস পর বাংলাদেশ টি-২০তে এমন অবস্থায় দাঁড়াবে যেখানে তাকে আর প্রয়োজন হবে না।

তামিম বলেন, ‘ছয় মাস পর যদি দলে আমার প্রয়োজন অনুভব হয় তাহলেই ফেরার ব্যাপারে চিন্তা করবো। যদি দেখি যারা আছে তারা ভালো খেলছে, তাহলে হয়তো এই ফরম্যাটে আর ফিরবো না।’

অভিমান থেকেই এমন সিদ্ধান্ত কি না এমন প্রশ্নের জবাবে তামিম বলেন, ‘বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য সেরা সিদ্ধান্তটা আমি নিয়েছি। মিডিয়াতে তো অনেক ধরনের কথা হয়, মান-অভিমান।’

তিনি যোগ করেন, ‘আমি সবসময় একটা কথা বলি, আমি বাংলাদেশকে যেকোনো ফরম্যাটে প্রতিনিধিত্ব করতে পারি। এর চেয়ে বড় কিছু আমার বা কোনো ক্রিকেটারের নেই। এখানে মান-অভিমান নেই, আমি যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি তা শুধুই ক্রিকেটের জন্য।’

বাংলাদেশের হয়ে তামিম সর্বশেষ টি-২০ খেলেছেন জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে, ২০২০ সালের মার্চে। ৭৮ টি-২০তে ১১৬.৯৬ স্ট্রাইক রেটে ৭ ফিফটি ও এক সেঞ্চুরিতে ১৭৫৮ রান করেছেন তিনি।