• শনিবার   ১০ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১৫ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
তারা বুদ্ধিজীবী না, বুদ্ধিপ্রতিবন্ধীজীবী- প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রার প্রশংসায় ইউরোপীয় ইউনিয়ন ঘূর্ণিঝড় ‘মানদৌস’ নিয়ে আবহাওয়া অফিসের নতুন বার্তা উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে: নৌপ্রতিমন্ত্রী শামসুল আলমের প্রতি ভারতীয় হাই কমিশনারের শ্রদ্ধা

‘বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়তে পর্যটন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে’ 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৭ জুলাই ২০২০  

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে পর্যটন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে বলে মন্তব্য করেছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

গতকাল বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের আয়োজনে বগুড়া জেলার সঙ্গে অনলাইন কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের পরিচালক আবু তাহের মোহাম্মদ জাবেরের সঞ্চালনায় ও বগুড়ার জেলা প্রশাসক মো. জিয়াউল হকের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ট্যুরিজম বোর্ডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জাবেদ আহমেদ, বিভিন্ন পর্যায়ের জনপ্রতিনিধি, গণমাধ্যমকর্মী, বিভিন্ন পর্যায়ের সরকারি কর্মকর্তা ও পর্যটনের সঙ্গে সম্পৃক্ত বিভিন্ন সেক্টরের অংশীজন।


তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে হলে দেশের সব সেক্টরের উন্নয়নের পাশাপাশি পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত, উন্নত বাংলাদেশ গড়তে পর্যটনের উন্নয়নের কোনো বিকল্প নেই।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে অর্জিত মূল্যবোধ, আমাদের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি ১৯৭২ সালের সংবিধানে অন্তর্ভুক্ত হয়েছিল। এই বিষয়গুলো আমাদের পর্যটনকে বিকশিত করার মূল অনুপ্রেরণা হিসেবে কাজ করছে।

মাহবুব আলী বলেন, একটি দেশ পর্যটনে উন্নত হওয়ার জন্য যা যা পূর্বশর্ত প্রয়োজন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমানে বাংলাদেশে তার সব উপাদান বিদ্যমান রয়েছে। পর্যটকদের সুবিধার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্ব ও তত্ত্বাবধানে পদ্মাসেতু, শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তৃতীয় টার্মিনাল, মেট্রোরেল, কক্সবাজার পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ, আঞ্চলিক এভিয়েশন হাভে রূপান্তরের লক্ষ্যে কক্সবাজার ও সৈয়দপুরে বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পরিণত করা, সিলেট ও চট্টগ্রামে অবস্থিত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দুটির ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সাধন এবং ঢাকা শহরে পাতাল রেল তৈরি করাসহ নানা মেগা প্রকল্প বর্তমানে বাস্তবে রূপ নিচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও তার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ এখন তথ্যপ্রযুক্তিতে অগ্রসরমান একটি জাতি।

মাহবুব আলী বলেন, কোভিড-১৯ এর কারণে সারা পৃথিবীর সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশের পর্যটনেও বর্তমানে একটি অচলাবস্থা বিরাজ করছে। তবে কোভিড-১৯ পরবর্তী সময়ে সারা দেশের মানুষ পর্যটন আকর্ষণসমূহে ও বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে ভিড় জমাবেন। পর্যটকদের সেই চাহিদা পূরণ করার জন্য আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে।