• বুধবার   ১০ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৬ ১৪২৯

  • || ১১ মুহররম ১৪৪৪

সর্বশেষ:
কম খরচে মাছের ভাসমান খাদ্য তৈরির যন্ত্র উদ্ভাবন শেকৃবি গবেষকের জনবিচ্ছিন্নদের ৭ দলীয় জোট রাজনীতিতে গুরুত্বহীন: তথ্যমন্ত্রী রংপুরে বাল্যবিয়ে ও নারী নির্যাতন বন্ধে শপথ নিলেন ২৫০ রিকশাচালক দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আবারো মনোনয়ন বাণিজ্যে তারেক বঙ্গবন্ধুকে সম্মানসূচক মরণোত্তর ডি-লিট ডিগ্রি দেবে ঢাবি

প্রবাসের অপপ্রচারকারীদেরও তালিকা হবে: হাছান মাহমুদ 

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২২  

যারা প্রবাসে বসে বাংলাদেশে হানাহানি সৃষ্টি করার জন্য ষড়যন্ত্র করছে এবং অপপ্রচার করছে এরা কারা আমরা জানি। প্রয়োজনে তাদের তালিকাও করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি। 

খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে দেশে বিএনপির সমাবেশে মারামারি ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ড. হাছান মাহমুদ বলেন, খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে দেশব্যাপী বিএনপি সমাবেশ করতে গিয়ে তাদের নিজেদের মধ্যে মারামারি করছে, চেয়ার-টেবিল ভাঙচুর করছে। এমনকি গতকাল চট্টগ্রামে তাদের মঞ্চ ভেঙে ফেলেছে। যারা নিজেদের সমাবেশ করতে পারে না, মারামারি করে মঞ্চ ভেঙে ফেলে তারা কিভাবে দেশ পরিচালনা করবে? তাদের হাতে ক্ষমতা গেলে তারা দেশও ভেঙে ফেলবে।

যুক্তরাষ্ট্রের গুয়ান্তানামো-বেসামরিক কারাগারে কয়েদিদের বিভিন্নভাবে নির্যাতন নিপীড়ন করা হয়। এ জন্য জাতিসংঘ এই কারাগার বন্ধের আহ্বান জানিয়েছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে হাছান মাহমুদ বলেন, গুয়ান্তানামো-বেসামরিক কারাগারটি কুখ্যাত একটি কারাগার। এখানে গত ২০ বছর ধরে কয়েদিদের রাখা হচ্ছে। বছরের পর বছর সেখানে বন্দি রেখে নির্যাতন করা হয়, যা মানবাধিকার লঙ্ঘন। এই কারাগার যে একটি নির্যাতনের কারাগার, এটা পৃথিবীব্যাপী জানে। গতকাল জাতিসংঘের হিউম্যান রাইস এক্সপার্টদের বক্তব্যে যুক্তরাষ্ট্রকে চোখে আঙুল দিয়ে তা দেখিয়ে দেওয়া হয়েছে যে, যুক্তরাষ্ট্রে কিভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন হয়? যে দেশে চরমভাবে মানবাধিকার লঙ্ঘন হয় তারা কিভাবে বিশ্বের মানবাধিকার লঙ্ঘনের কথা বলে এই নিয়েও অনেকে  প্রশ্ন তুলেছেন।

যেসব বাংলাদেশি প্রবাসী বিদেশে বসে গুজব ছড়াচ্ছে তাদের পাসপোর্ট বাতিল করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে- এ বিষয়ে জানতে চাইলে  তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী বলেন, যারা প্রবাসে বসে দেশের মধ্যে হানাহানি সৃষ্টি করার জন্য ষড়যন্ত্র করে, গুজব অপপ্রচার চালায় এবং বিদেশিদের কাছে দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার করে এগুলো রাষ্ট্রদ্রোহিতা মূলক কার্যক্রম। সুতরাং কেউ যদি এ ধরনের কার্যক্রম চালায় রাষ্ট্র তার পাসপোর্ট বাতিল করতে পারে। গতকাল আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত কমিটিতে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে। কারা কারা এই ষড়যন্ত্র, গুজব ও অপপ্রচারের সঙ্গে যুক্ত তা আমরা জানি। প্রয়োজনে তাদেরও তালিকা করা হবে।