• বৃহস্পতিবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

সর্বশেষ:
ক্ষমতায়ন ছাড়া সমাজে নারীর অবস্থান উন্নত হবে না: প্রধানমন্ত্রী অপপ্রচারকারীদের কনস্যুলার সেবা দেবে না কানাডার বাংলাদেশ মিশন ‘দেশের ফুটবল দলকে বিশ্বকাপের উপযোগী করতে কাজ চলছে’ ট্রেনের ধাক্কায় ইউএনও অফিসের নৈশপ্রহরীর মৃত্যু ‘পলিথিন প্রস্তুতকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে’

কিশোরগঞ্জে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ, ১৫ দিন পর উদ্ধার

– নীলফামারি বার্তা নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১১ মে ২০২২  

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় কিশোরীকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। ১৫ দিন পর তাকে উদ্ধার করা হয়। ভুক্তভোগী ওই কিশোরীকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

বুধবার (১১ মে) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজিব কুমার রায়। তিনি বলেন, ‘এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। ইতোমধ্যে একজন নারীকে পুলিশ গ্রেফতারও করেছে।’

পুলিশ জানায়, কিশোরীর বাড়ি নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায়। তার অভিযোগ, পার্শ্ববর্তী এলাকায় খালার বাড়িতে ইফতার শেষে ফেরার পথে একটি দোকানের সামনে থেকে স্থানীয় যুবক জীবন, মানিক ও রশিদুল তাকে তুলে নিয়ে যান। পরে চড়াইখোলা এলাকায় প্রথমে ভুট্টাক্ষেতে পালাক্রমে ধর্ষণের পর একটি গভীর নলকূপের ঘরে ৫ দিন আটকে রেখে আবারও পালাক্রমে ধর্ষণ করেন তারা। তারপর আরেকজনের কাছে টাকার বিনিময়ে তুলে দেয় নির্যাতনকারীরা।

পুলিশ আরও জানায়, ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে জানালে তাকে এবং তার পরিবারের সদস্যদের মেরে ফেলার হুমকি দেন অভিযুক্তরা। পরে বাড়িওয়ালা মাহাবুলের সহযোগিতায় রংপুর থেকে গত রবিবার (৮ এপ্রিল) স্থানীয় মেম্বার খায়রুলের জিম্মায় বাড়িতে যান। যাওয়ার পথেও অভিযুক্তদের পরিবার তাকে প্রকৃত ঘটনা না বলার জন্য চাপ দেয়। কিন্তু বাড়িতে গিয়ে কিশোরী পুরো ঘটনা খুলে বলেন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে কিশোরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে কর্তৃপক্ষ তাকে উন্নত চিকিৎসা এবং ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য মঙ্গলবার বিকালে রংপুর মেডিক্যালে পাঠায়।

রংপুর মেডিক্যালের জরুরি বিভাগের আবাসিক চিকিৎসক ডা. ফিরোজ মিয়া বলেন, ‘কিশোরী আমাদের বলেছেন-সে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তার চিকিৎসা যাতে ভালোভাবে হয়, সেটা আমরা গাইনি ডিপার্টমেন্টকে অবহিত করেছি।’ 

স্বজনদের অভিযোগ, ঘটনার পরপরই থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়েছিল। তবে উদ্ধারে ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ।

নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ থানার ওসি রাজিব কুমার রায় বলেন, ‘এ ব্যাপারে থানায় একটি মামলা হয়েছে। পুলিশ বুধবার সন্ধ্যায় একজন নারীকে গ্রেফতার করেছে। অন্যদের ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে।’